কোচের উজাড় প্রশংসায় ভাসলেন মেসি [ ] 21/03/2017
কোচের উজাড় প্রশংসায় ভাসলেন মেসি
কোচ লুই এনরিকের প্রশংসায় ভাসলেন লিওনেল মেসি। গত রবিবার রাতে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের বিরতির আগে পরে করা জোড়া গোলে বার্সেলোনা ৪-২ ব্যবধানে হারায় ভ্যালেন্সিয়াকে। অন্য দুই গোলদাতা হলেন লুইস সুয়ারেস ও আন্দ্রে গোমেস। সুয়ারেজ ৩৫ মিনিটে গোলের সূচনা করেন। অপরদিকে পর্তুগীজ মিডফিল্ডার গোমেসের গোলটি আসে ৮৯তম মিনিটে।

যদিও এ জয়ের পরও স্পানিশ লিগের শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদই। ন্যু ক্যাম্পে অনুষ্ঠিত খেলাটিতে  জয়ের পর ২৮ ম্যাচে বার্সেলোনার পয়েন্ট ৬৩। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদ আছে ৬৫ পয়েন্টে।

মেসি এ রাতের নৈপুণ্যের পর টানা অষ্ঠম বছরের মতো সব ধরনের প্রতিযোগিতায় কমপক্ষে ৪০ গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন। বিরতি সময়েই ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল কাতালান ক্লাবটি। অবশ্য মেসি, সুয়ারেজ ও নেইমার সমৃদ্ধ আক্রমণভাগের বিরুদ্ধে অর্ধেকের বেশি সময় একজন কম নিয়ে খেলেও লড়ে যায় ভ্যালেন্সিয়া। শেষ পর্যন্ত যদিও বার্সেলোনাকে রোখা সম্ভব হয়নি পয়েন্ট তালিকার নীচের দিকে থাকা দলটির।

মূলত মেসির পেনাল্টি মেরেই বিরতি সময়ে দলকে এগিয়ে দেন। এটি ছিল লিগে তার ২৫তম গোল। চলতি মৌসুমে এর বাইরে তার ১১ গোল আছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে, চারটি কিংস কাপে এবং আরেকটি স্পানিশ সুপার কাপে। সব মিলিয়ে ৪১ গোল। ২০০৯-১০ মৌসুমে প্রথমবারের মতো সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪০ গোল করেন তিনি। এরপর থেকে প্রতি মৌসুমে এটি অব্যাহত রেখেছেন আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনা সুপারস্টারটি।

এরকম নৈপুণ্য দেখিয়ে চলা ফুটবলারটির প্রশংসা করবেন তার কোচ, এটাই স্বাভাবিক। এনরিকে বলেন, ‘এটা দারুণ, সে প্রতিটি রেকর্ডই ভেঙেছে এবং আরো রেকর্ড গড়া অব্যাহত রাখবে। মেসির খেলা উপভোগ করা কি দুর্দান্ত ব্যাপার। কেউ তার এ সংখ্যাগুলো স্পর্শ করতে পারবে না। সে ছাড়া অন্য কারো পক্ষে এমনটা করা অসম্ভব ব্যাপার। সে যখন বিদায় নেবে তখন আমরা তার অভাব বোধ করবো।’

আর্জেন্টাইনটি ২০০৪ সালের বার্সেলোনার হয়ে অভিষেক নেন এবং ২০১২ সালেই ক্লাবটির সর্বকালের সর্বাধিক গোলদাতার আসনে উঠে আসেন। এ প্রসঙ্গে এনরিকে বলেন, ‘সেই সর্বকালের সেরা এবং আমরা তাকে এটা করতে দেখে অভ্যস্ত। সে এটাকে সাদামাটা ব্যাপারে পরিণত করেছে। যদিও আমরা জানি এটা কতটা কঠিন এবং সে যখন খেলা ছাড়বে সেসময় অন্য কারো জন্য এ কীর্তিকে ছাড়িয়ে যাওয়া খুবই কঠিন হবে। আমাদের শুধু তার সামনে পড়ে থাকা বছরগুলো উপভোগ করা দরকার।’

একইদিনের অপর খেলায় আন্তনিও গ্রিজম্যানের দুর্দান্ত ফ্রিকিকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ নিজেদের মাঠে ৩-১ গোলে হারায় সেভিয়াকে। ইংলিশ ক্লাব লেস্টার সিটির কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ের পর সেভিয়া এই পরাজয়ে লা লিগার শিরোপা লড়াই থেকেও একরকম ছিটকে গেল। কেননা এই হারে ২৮ খেলা শেষে তারা আগের অর্জন ৫৭ পয়েন্টেই থাকলো। যদিও সেভিয়া এখনো তৃতীয় স্থানেই আছে। অপরদিকে লিগে টানা তৃতীয় জয়ে ৫৫ পয়েন্ট পেল চতুর্থ স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকো। সুপারস্পোর্ট।
 
 
Forward to Friend Print Close Add to Archive Personal Archive  
Forward to Friend Print Close Add to Archive Personal Archive  
Today's Other News
• শ্রদ্ধার মঞ্চে সাবেকদের মিলনমেলা
• এবার তামিমদের লক্ষ্য সিরিজ জয়
• বাংলাদেশের বদলই পরাজয়ের কারণ
• পুরনো ঝলক দেখালো সাবেকরা
More
Related Stories
No link found
            Top
            Top
 
Home / About Us / Benifits / Invite a Friend / Policy
Copyright © Hawker 2013-2012, Allright Reserved
free counters