[ অর্থনীতি ] 16/06/2017
 
পোশাকশ্রমিকদের বেতনভাতা রোববারের মধ্যে দিতে হবে
তৈরি পোশাকশ্রমিক ও দোকান কর্মচারীদের ঈদ বোনাস ও চলতি মাসের বেতন আগামী রোববারের মধ্যে পরিশোধের দাবি করেছেন জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন (এনজিডব্লিউএফ) ও জাতীয় দোকান কর্মচারী ফেডারেশনের নেতারা।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে গতকাল বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি করেছেন দুই ফেডারেশনের নেতারা। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন এনজিডব্লিউএফের সভাপতি আমিরুল হক আমিন। শ্রম বিধিমালা অনুযায়ী পোশাকশ্রমিক ও দোকান কর্মচারীদের এক মাসের বেতনের সমপরিমাণ অর্থ ঈদ বোনাস হিসেবে দেওয়ার দাবি করেন তিনি।

আমিরুল হক বলেন, প্রতি ঈদেই হাতে গোনা কিছু পোশাক কারখানার মালিক শ্রমিকের বেতন-ভাতা নিয়ে টালবাহানা এবং ছলচাতুরীর আশ্রয় নেন। ফলে শ্রমিকেরা ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হন। এবার শ্রমিকেরা যেন ঈদের আগে বেতন-ভাতা পান, সেটি নিশ্চিত করতে সরকার, বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষ ও আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাকে সজাগ থাকার অনুরোধ করেন তিনি।

রোজার শুরুর দিকে তৈরি পোশাকশিল্পের ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টবিষয়ক কোর কমিটির ৩৩তম সভা শেষে পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সহসভাপতি মোহাম্মদ নাছির প্রতিশ্রুতি দেন, ২০ রমজানের মধ্যে শ্রমিকদের উৎসব ভাতা দেবেন বিজিএমইএর সদস্যরা। বিষয়টি তদারকি করার কথাও বলেন তিনি।

এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে আমিরুল হক বলেন, ‘ঈদ বোনাস ও বেতন পরিশোধে তেমন অগ্রগতি নেই। গত মাসের বেতন পরিশোধ করে ঈদ বোনাস ও চলতি মাসের বেতনের হিসাব করতে কিছুটা বাড়তি সময় চেয়েছেন অনেক পোশাক কারখানার মালিক। তাই আমরা ২২ রমজান বা রোববারের মধ্যে বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবি করেছি।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন জাতীয় দোকান কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, ইউনি বাংলাদেশ কাউন্সিলের নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামাল।